উকুন দূর করার উপায় – ১০০% কার্যকরী

মাথায় উকুন বাসা বেঁধেছে দূর করার উপায় কি? বিভিন্ন ওষুধ কিংবা টিপস অনুসরন করেও কোন সমাধান পাচ্ছেন না? আপনার উত্তর যদি হ্যা হয় তবে আজকের লেখাটি আপনার জন্য। প্রিয় পাঠক আজকের লেখাজুড়ে আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করবো উকুন দূর করার উপায়, কার্যকরী কিছু ওষুধ ও শ্যাম্পুর নাম। এবং সবশেষে আপনাদের জন্য থাকছে বিশেষ কিছু টিপস। চুল থেকে এই পরজীবী পোকাটি দূর করার উপায় জানার আগে জানা উচিত কি কারণে চুলে এই পরজীবী পোকাটি হয়।

চুলে উকুন হওয়ার কারন কি?

মূলত অপরিষ্কার বা তেলতেলে মাথায় উকুন হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তবে অন্য ব্যাক্তির (যাদের মাথায় এই পরজীবী প্রান আছে) তাদের চুলে ব্যবহৃত চিরুনি, তোয়ালে দিয়ে চুল মুছলে এই পরজীবী পোকাটি হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। জার্মানিতে ছোঁয়াচে রোগ সর্দি কাশির পরেই রয়েছে উকুনের স্থান। এছাড়াও মাথায় মাথা লাগিয়ে সেলফি, বাস ট্রেনে খালি মাথায় যাতায়াত করলেও অনেক সময় উকুনের সংক্রমণ দেখা দিয়ে পারে।

উকুন দূর করার উপায়

যদিও বর্তমানে উকুন দূর করার জন্য অনেক শ্যাম্পু ও ওষুধ পাওয়া যায়। তবে আপনি চাইলে ঘরে বসেই সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায়ে এই পরজীবী পোকাটি দূর করা সম্ভব। চুলুন ঘরোয়া ভাবে এই দূর করার উপায় জেনে নেওয়া যাক।

টি ট্রি অয়েল

উকুন দূর করতে সবচেয়ে কার্যকরী যে সকল ঘরোয়া উপায় আছে তার মধ্যে এটি অন্যতম। টি ট্রি বা চা গাছের তেলের সাথে অলিভ অয়েল মিশিয়ে মাথার চুলের গোঁড়ায় দিয়ে ঘুমান এবং সকালে উঠে শ্যাম্পু করে নিন। দ্রুত lice থেকে মুক্তি মিলবে।

নিমের তেল

এই পরজীবী পোকাটি দূর করতে নিমের তেল বেশ কার্যকরী। বাজারে প্রসাধনীর দোকানে নিমের তেল পেয়ে যাবেন। শ্যাম্পুর মধ্যে কয়েক ফোটা নিমের তেল নিয়ে গোসলের সময় শ্যাম্পু করে নিন। পরবর্তীতে চিকন চিরুনি দিয়ে মরা উকুন ও ডিম বের করে আনেন।

ভিনেগার

অনেকেই অবাক হবেন যে আপনার রান্না ঘরে অযত্নে অবহেলায় পড়ে থাকা ভিনেগারও হতে পারে উকুন দূর করার মহাঔষধ। মাথার lice দূর করতে ভিনেগারও বেশ কার্যকরী। হাতে ভিনেগার নিয়ে চুলে নারিকেল তেল দেওয়ার মতে করে মাথার ত্বকে ভালো করে লাগিয়ে নিন এবং ১০ মিনিট রেখে দিন। এর পর পরিস্কার পানি দিয়ে ধুয়ে নিন ও পরে শ্যাম্পু করে নিন। ১ দিন পর ১ দিন এভাবে টানা দুই মাস ব্যবহার করুন।

লেবুর রস এবং রসুন দিয়ে দূর করুন

লেবুর রস এবং রসুন দিয়েও খুব সহজেই lice দূর করতে পারেন। প্রথমে টেবিল চামচ লেবুর রস ও দুই চা চামচ রসুনের রস মিশিয়ে নিন এরপর লেবু ও রসুনের রস চুলের গোঁড়ায় ভালো করে লাগিয়ে নিন। একটি তোয়ালে দিয়ে আধা ঘণ্টা জড়িয়ে রাখুন এবং পড়ে শ্যাম্পু করে ভালোভাবে ধুয়ে নিন।

উকুন দূর করার শ্যাম্পু

বাজারে বিভিন্ন ব্রান্ডের উকুন নাশক শ্যাম্পু পাওয়া যায়। অথেনটিক যে কোন প্রসাধনীর দোকানে পরজীবী পোকা নাশক শ্যাম্পু পেয়ে যাবেন। প্যাকেটের গায়ে দেওয়া নির্দেশনা অনুসারে চুলে ব্যবহার করুন।

কিছু টিপস

  • চুলে ব্যবহার করা ব্রাশ, চিরুনি বা এ জাতীয় অন্যান্য জিনিসপত্র (ভেজানো সম্ভব হলে) ১০ মিনিটের জন্য গরম পানিতে ভিজিয়ে পরিস্কার করে নিন।
  • উকুন আছে এমন ব্যাক্তির ব্যবহৃত বিছানা, পোশাক, চিরুনি ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন এবং নিজের জিনিসপত্র নিয়মিত পরিষ্কার করুন।
  • বাস, ট্রেন কিংবা পাবলিক পরিবহনে যাতায়াত করার সময় হিজাব ব্যবহার করুন।

উকুন মারার ওষুধের নাম

উকুন মারার জন্য সবচেয়ে কার্যকরী কয়েকটি ওষুধ হচ্ছে লিকনিল .০.৫% লোশন (Licnil 0.5%), পারমিথ্রিন (Permethrin), এলিচ (Alice)। বাজারে যে সকল শ্যাম্পু পাওয়া যায় এগুলোর মধ্যে ইংলিশ এন্টি লিচে শ্যাম্পু বেশ কার্যকরী।

সর্বশেষ

উকুন মারার উপায় নিয়ে আজকের মতো এখানেই শেষ করছি। আপনার মতামত, প্রশ্ন থাকলে লিখতে পারেন আমাদের কাছে।

আরও পড়ুনঃ ঠোঁট গোলাপি করার উপায়

Scroll to Top