তালমাখনা কি? খাওয়ার উপকারিতা, নিয়ম, অপকারিতা

তালমাখনা বা কুলেখাড়া একটি আয়ুর্বেদ ভেষজ। জনপদ ভেদে তালমাখনা ভিন্ন ভিন্ন নামে পরিচিত। শক্তি বৃদ্ধি, যৌন ও স্নায়বিক দুর্বলতা হ্রাস, মানসিক অবসাদ দূর করতে তালমাখনার বীজের বেশ সুনাম রয়েছে এবং বৈজ্ঞানিক গবেষণায়ও এটি প্রমানিত। প্রিয় পাঠক, আজকের লেখাজুড়ে আমি আপনাদের সাথে বিস্তারিত আলোচনা করবো তালমাখনা কি, তালমাখনা খাওয়ার উপকারিতা, খাওয়ার সঠিক নিয়ম, পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া বা অপকারিতা, কোথায় কিনতে পাওয়া যায়, দাম, আসল তালমাখনা চেনার উপায় এবং এ সম্পর্কিত অন্যান্য তথ্য।

তালমাখনা কি?

Talmakhna বা তালমাখনা একধরনের লতাগুল্ম জাতীয় বর্ষজীবী উদ্ভিদ যা আয়ুর্বেদ চিকিৎসায় গ্যাস্ট্রোইন্টেস্টাইনাল, কিডনি, প্রজনন, লিভার এবং হাড়ের রোগের ওষুধ তৈরিতে ব্যবহার করা হয়। এই গাছের উচ্চিতা ৩০ সেন্টিমিটার থেকে ৫০ সেন্টিমিটার পর্যন্ত হয়ে থাকে। সাধারনত হেমন্ত থেকে শীতকালে এই গাছে ফুল হয় এবং ফুল থেকে বীজ সংগ্রহ করা হয়। তালমাখনার বীজ আকারে ছোট ও গোলাকৃতির হয়ে থাকে এবং দেখতে অনেকটা সরিষার দানা বা তিলের মতো।

তবে তালমাখনা অনেকের কাছে কুলেখাড়া, কোকিলাক্ষা নামেও পরিচিত। এর ইংরেজি নাম Marsh Babel এবং বৈজ্ঞানিক নাম Hygrophil Schulli.

তালমাখনা খাওয়ার উপকারিতা

তালমাখনা গাছের পাতা থেকে শিকড় সবই মানব দেহের জন্য বিশেষ উপকারী। তবে এই গাছের বীজ সরাসরি খাওয়া যায় এবং ভীষণ উপকারী। প্রিয় ভিজিটর চলুন এপর্যায়ে তালমাখনার বিভিন্ন উপকারিতা সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক-

পুরুষের বন্ধ্যত্বের চিকিৎসায়

কুলেখাড়া বা তালমাখনা গাছের বীজ পুরুষদের বন্ধ্যত্বের উন্নতি করতে পারে। এর বীজ একটি অ্যাফ্রোডিসিয়াক হিসেবে কাজ করে। এটি সিরাম টেস্টোস্টেরন এবং শুক্রাণুর সংখ্যা বাড়াতে কাজ করে।

যৌন শক্তি বৃদ্ধি করে

পুরুষদের অনেকেই আর্লি ডিসচার্জ বা অকাল বীর্যপাতজনিত সমস্যায় ভোগেন। আপনি জেনে অবাক হবেন যে যৌন শক্তি বা হারানো উদ্দীপনা ফিরিয়ে আনতে তালমাখনা বেশ কার্যকরী।

গাউট বা গেঁটে বাত ব্যাথা নিরাময়

গাউট একটি বেদনাদায়ক বিপাকীয় রোগ যার ফলে আমাদের জয়েন্টগুলোতে প্রদাহ এবং ইউরিক অ্যাসিড জমা হয়। নিয়মিত তালমাখনা গ্রহণ করলে গাউটের উপসর্গ কমাতে সাহায্য করে।

গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা দূর করে

আমাদের অনেকেই গ্যাস্ট্রিকজনিত সমস্যায় ভুগি। বাচ্চা থেকে বৃদ্ধ সকলেই প্রায় এই সমস্যায় ভোগেন। যাদের গ্যাস্ট্রিকজনিত সমস্যা আছে তারা রাতে পরিমাণমতো তালমাখনা বা কুলেখাড়া সেবন করতে পারেন।

হজম শক্তি বৃদ্ধি

বিভিন্ন কারনে হজমে সমস্যা হতে পারে। যারা প্রায় সময়ই হজম সমস্যায় ভোগেন বা হজম শক্তি কম তারা নিয়মিত তেলমাখনা খেতে পারেন। কারণ এটি গ্যাস্ট্রিকের সমস্যার সমাধানের পাশাপাশি হজমশক্তি বৃদ্ধিতেও দারুন কাজ করে।

কিডনি রোগ প্রতিরোধ

নিয়মিত তালমাখনা বা কুলেখাড়া সেবন করলে কিডনির স্বাস্থ্য ভালো থাকে। পাশাপাশি এটি সেবনের ফলে কিডনির বিভিন্ন জটিল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বৃদ্ধি পায়।

প্রসাবের জ্বালাপোড়া দূর করে

যাদের প্রসবের জ্বালাপোড়াজনিত সমস্যা আছে তারা প্রসাবের জ্বালাপোড়াজনিত সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে নিয়মিত তালমাখান সেবন করতে পারেন।

তালমাখনা খাওয়ার নিয়ম

যৌনশক্তি বৃদ্ধির জন্য তালমাখান বা কুলেখাড়া খাওয়ার নিয়ম-

১ থেকে ২ চা চামচ কোকিলক্ষা বা তালমাখান বীজ বা বীজের পাউডার নিন এবং এতে স্বাদমতো (২-৩ চা চামচ) মধু যোগ করুন। দুপুরে এবং রাতে খাবারের পর এটি সেবন করুন। ভালো ফল পেতে ১-২ মাস নিয়মিত খাওয়ার চেষ্টা করুন। মধুর পাশাপাশি এ গ্রাম পরিমাণ অশ্বগন্ধা চূর্ণ মিশিয়ে পান করলে আরও ভালো ফল পাওয়া যায়।

প্রসাবের জ্বালাপোড়া দূর করতে

প্রসাবের জ্বালাপোড়া থেকে মুক্তি পেতে আখের গুরের সাথে ৩ গ্রাম পরিমাণ তালমাখনা ২০ থেকে ৩০ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন এবং সকালে খালি পেটে কিংবা দুপুরে বাহির থেকে বাসায় এসে পান করুন।

শারীরিক দুর্বলতা দূর করতে

শারীরিক দুর্বলতা অনুভব হলে এবং মধু না থাকলে আপনি শুধু পানির সাথে ভিজিয়েও তালমাখনা খেতে পারেন। প্রতিদিন সকালে খালি পেতে ও রাতে ৩ গ্রাম পরিমাণ কুলেখাড়া ১ গ্লাস পানিতে ৩০ মিনিট ভিজিয়ে সেবন করুন। আপনি চাইলে দুধের সাথেও মিশিয়ে খেতে পারেন।

পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া বা অপকারিতা

তালমাখনা কিংবা কুলেখাড়া খাওয়ার নানা উপকারিতা থাকলেও অতিরিক্ত পরিমাণ খেলে এটি উপকারের বলদে ক্ষতির কারণ হয়ে দাড়াতে পারে। অতিরিক্ত তালমাখনা খাওয়ার অপকারিতা ও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াসমূহ নিচে দেওয়া হল-

এটি একটি যৌন শক্তি বর্ধক। তবে অতিরিক্ত তালমাখনা বা কুলেখাড়া খাওয়ার ফলে হঠাৎ হরমোনের বৃদ্ধিতে শারীরিক জতিলতা, গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা, অন্তক্রিয়ায় সমস্যা, কোষ্ঠকাঠিন্যের মতো বিভিন্ন সমস্যা দেখা দিতে পারে।

চেনার উপায়

তালমাখনা বা কুলেখাড়ার বীজের রঙ গাঢ় খয়েরি রঙের হয়ে থাকে। এটি দেখতে অনেকটা সরিষার দানা কিংবা তিলের মতো এবং একই সাথে মিষ্টি ও তিতা স্বাদযুক্ত।

কোথায় পাওয়া যায়

তালমাখনার নানা উপকারিতা থাকায় এর বাজার চাহিদাও বেশ ভালো। বর্তমানে বিভিন্ন অনলাইন শপ, মুদি দোকান, ফার্মেসী এবং অরগানিক খাবারের দোকানেও কুলেখাড়া কিংবা তালমাখনা কিনতে পাওয়া যায়।

দাম

বাংলাদেশে ১ কেজি তালমাখনা বীজের ও পাউডারের দাম ১০০০ টাকা থেকে ১৫০০ টাকা।

পাউডার

বাজারে তালমাখান বীজ ও বীজের পাউডার উভয়ই কিনতে পাওয়া যায়। আপনি যে কোনটি খেতে পারেন।

সর্বশেষ

প্রিয় পাঠক, আজকের মতো এখানেই শেষ করছি। বর্তমান বাজার অনেক নিম্নমানের পন্য ও অসাধু ব্যবসায়ীদের দখলে। তাই ভালো মানের তালমাখনা কিংবা কুলেখাড়া কিনতে অবশ্যই বিশ্বস্ত ও স্বনামধন্য ব্রিক্রেতার নিকট থেকে ক্রয় করার চেষ্টা করুন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top